মেনু নির্বাচন করুন

ভাষা ও সংস্কৃতি

 

  ভাষা ও সংস্কৃতি :-

    রূপকারী ইউনিয়নে মুসলিম,হিন্দু ও চাকমারা পাশা পাশি বসবাস করে আসছেন।। তবে সংখ্যা্র দিক দিয়ে চাকমারা বেশী এখানে । জাতীয়  চাকমাদেরই জাতীয় ভাষা, সংস্কৃত্‌ কৃষ্টি ও সাহিত্য আছে । দুশ বছর আগে চাকমা লিপিত(script) চাকমা ভাষায় সাহিত্য রচিত হতো যেমন- প্রাচীন লোক সাহিত্য,গাথা,উপাখ্যান, পালাগান, ছড়া,উবাগীত,ধাঁধা, প্রবাদ ইত্যাদি। অন্য দিকে চাকমাদের নাচ,গান,খেলাধুলা,পোষাক,পরিচ্ছদ,সম্পূর্ন রূপে স্বাতন্ত্র্য ও ঐতিহ্য রক্ষা করে চলিতেছে যেমন নাচ -গানে খেংগরং, ঢোল,ধুদুক,বাশি,বেহালা, শিঙ্যা  বাদ্যযন্ত্র্ রূপে ব্যবহার হচ্ছে। খেলাধুলায়,নাদেং,ঘিলা,পত্তি,(দাড়িঁয়ে বান্দা) গুদু হারা,(হাডুডু) ইত্যাদি। আর পোষাক পরিচ্ছদে পিনোন,মেয়েদের পরিধানের বস্ত্র। খবং ( মাথার পাগুরী) খাদি(বুক কাপড়)ফারতদড়ি (কোমর বন্ধনী) খবই (গায়ে দেওয়ার ব্লাউজ) সুতরাং বলা চলে আধুনিকতার যুগে চাকমাদের সংস্কৃতি সমৃদ্ধিশালী না হলেও মোটামুটি দেশের জাতীয় সংস্কৃতির পাশাপাশি সম্পূর্ণ স্বাতন্ত্র্য রূপে টিকে আছে। চাকমারা নিজস্ব ভাষায় কথা বলে।

 

রূপকারী ইউনিয়নে 'কাজলং মুরোল্যে সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী'  নামে একটা সাংংস্কৃতিক সংগঠন আছে, যার রেজিঃনং রাঙ্গা-২৭১/২০১০। এটি সমাজসেবা অধিদফতর  থেকে নিবন্ধিকৃত। প্রখ্যাত গীতিকার ও সুরকার অমর শান্তি চাকমা কতৃক এটি পরিচালিত হয়। এই সংগঠনের মাধ্যমে সমগ্র উপজেলায় সংস্কৃতির বিকাশ সাধন করা হয়ে থাকে।